একান্তে অসমাপ্ত

সন্ধ্যা সাতটা। বাস থেকে নামলাম। আহ! অনেকদিন পর গ্রামের বাড়ি এলাম। আমাকে নিবার জন্য কাদের ভাই এসেছেন। কাদের ভাই ভ্যান চালান। তবে শুধু দিনে। রাতকানা রোগের কারণে রাতে চালাতে পারেন না। আজ তার একটু অসুবিধাই হবে বৈকি। সেটা নিয়ে কাদের ভাইয়ের মাথা ব্যাথা নেই। আমাকে দেখে উচ্ছ্বসিত হয়ে বললেন, “আলা অসলো ভাই? এতো সান হইল ক্যানে? ভ্যানত উঠ চ যাই।” আমি বললাম, “চল কাদের ভাই।” আমাদের গ্রামের নাম ভবানীপুর। রানী ভবানীর নামে নাম। স্থানীয়ভাবে প্রচলিত নাম দেহনি। লোকে উচ্চারণ করে দেহুনি। এই নাম কোত্থেকে কীভাবে এলো জানি না। গ্রামে ঢুকতেই চামার দীঘি। তারপর ভবানীপুর মাদ্রাসা। আমাদের দাদাদের হাতে গড়া। গ্রামবাসীদের অর্থে চলে। প্রতিবছর এখান থেকে তিন জন করে হাফেজ বের হয়। মাদ্রাসা সংলগ্ন আমাদের পারিবারিক গোরস্তান। কাদের ভাইকে থামাতে বললাম।...বাকিটুকু পড়ুন

বাংলা ভাষায় প্রোগ্রামিং!

কম্পিউটার প্রোগ্রামিং কি সেটা আমরা সবাই মোটামুটি জানি। সাধারণত প্রোগ্রামিং লেখার মাধ্যম বা ভাষা হল ইংরেজি। আমরা সচরাচর যেসব ল্যাংগুয়েজে(এই ল্যাংগুয়েজ হল প্রোগ্রামিং-এর বিভিন্ন প্রকারভেদ যেমন- সি, পাইথন, জাভা ইত্যাদি) প্রোগ্রামিং করি সেগুলোর বলতে গেলে সবগুলোই ইংরেজি ভাষায় লিখতে হয়। History of Programming Languages (HOPL) এর তথ্য অনুযায়ী এখন পর্যন্ত ৮৫০০ এর উপরে প্রোগ্রামিং ল্যাংগুয়েজগুলোর মধ্যে এক তৃতীয়াংশেরই লেখার ভাষা হিসেবে ইংরেজি ব্যবহৃত। এর কারণ হতে পারে বেশির ভাগ প্রোগ্রামিং ল্যাংগুয়েজগুলো যুক্তরাষ্ট্র, যুক্তরাজ্য, কানাডা বা অস্ট্রেলিয়ায় নির্মিত, অথবা শুধুমাত্র বেশীরভাগ(যেহেতু ইংরেজি আন্তর্জাতিক ভাষা) মানুষের কাছে পৌছানোর জন্য। তথাপি ১৯৬৮ সালে প্রথম Non-English-based programming language হিসেবে ALGOL’68 কে পাঁচটি বিভিন্ন ভাষায় রূপান্তরের অনুমোদন দেওয়া হয়। পর্যায়ক্রমে চাইনিজ, কোরিয়ান, আরবি, লাটভিয়ান প্রভৃতি ভাষায় প্রোগ্রামিং ল্যাংগুয়েজ নির্মিত হয়। এরই ধারাবাহিকতায় এ বছর(২০১৪) এর...বাকিটুকু পড়ুন