একটি নিষিদ্ধ রাজনৈতিক দল

[প্রথম প্রকাশ ব্লগ | হিউম্যানস অব ঠাকুরগাঁও-এ এপ্রিল ১১, ২০১৭ তারিখে] আমার ঘুমে পড়বে এশা, কাটবে নেশা ঘুমের আমার ঘুমেই বুঁদ হব যে, সুদ নেব আজ খুনের।   নেশায় আমি মত্ত যে রোজ, তত্ত্ব যে দেই ভোটের দলকে এবার জিততে হবে, দশ দলীয় জোটের। দল হল খুব, মাল হল চুপ, আজ আমি তো রাজা দলের প্রতিক এবার দেব সত্যি তিলের খাজা। খাজাও হবে, গাঁজাও হবে আরও হবে সুরা সুরায় মাতাল দল হবে যে, মজাও হবে পুরা। প্রচারনায় নামবে লোকে খাজা-গাঁজা-সুরায় দলটা এবার জিইত্যা গেলে দেশকে দিব ঘুরায়। দেশের ভাল, দশের ভাল, নেশা ভাল সবার জাতীয় খেলা হবে সুরার, কে খেল পেগ কবার। গাঁজার হবে অনুমোদন, ট্যাটু দেব এঁকে জিইত্যা গেলে দেইখা নিয়েন মন্ত্রী বানাই কাকে! মন্ত্রী হবে, তন্ত্রী ভরে ঢুকবে কেরুর মাল কোটায় কোটায় পুরিয়ে দেব পানির...বাকিটুকু পড়ুন

ভুল কবিতার ময়নাতদন্ত

একদিন এক ছেলে ভুলে একটা কবিতা লিখে ফেলেছিল। কবি হবার পেছনে নাকি ভীষণ কষ্ট থাকা লাগে, বেদনা লাগে, আত্মার আকুল আকাঙ্ক্ষা লাগে। তার ক্ষেত্রে উল্টোটা হল। কবিতা লেখার পরদিন থেকে তার দুর্দিন শুরু হল! প্রথম প্রথম সে বুঝতে পারেনি কষ্ট বাড়ছে কেন। সে যেহেতু স্বাভাবিক সুখী অবস্থায় থেকে কবিতা লিখে ফেলেছিল, প্রকৃতি তাঁর ভারসাম্য রক্ষা করবার জন্য ছেলেটাকে শাস্তি দিতে শুরু করল। সেদিন থেকে সে আর কথা বলত না। বললেও খুব অল্প। দিনের বেশিরভাগ সময় একা একা চলাফেরা করতো। কিন্তু একা কেন চলছিল এটা বুঝতে সময় লেগেছিল ওর। কবিতাটা লেখা হয়েছিল কার্তিকের কোন এক শেষরাতে। বাহিরে মুহুর্মুহু মৃদু সুগন্ধি হাওয়া বইছিল। মনে হচ্ছিল দূরের খুব দূরের কোন বাগান থেকে শিউলি ফুলের মিষ্টি ঘ্রাণ ভেসে আসছে। যেন শুধুমাত্র তারি জন্য এতো পথ...বাকিটুকু পড়ুন